সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন SEO টিউটোরিয়ালঃ ভাল কন্টেন্ট কোনটাকে বলবেন? [পর্ব-১৪]

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন SEO টিউটোরিয়ালঃ ভাল কন্টেন্ট কোনটাকে বলবেন? [পর্ব-১৪]

ভাল কন্টেন্ট কোনটা ?

 

আমাদের ওয়েবসাইটে যে content গুলো থাকবে তার সবই যে ভাল হবে এমন কোন কথা নেই। কিছু ভাল, কিছু মাঝারি মানের কন্টেন্ট থাকবে। আমাদের অবশ্য সবসময় চেষ্টা করতে হবে ভাল কন্টেন্ট তৈরি করার এর জন্য আমরা ভাল আর্টিকেল রাইটার হায়ার করতে পারি অথবা নিজেরাও লিখতে পারি। আসলে কোনগুলাকে আমরা ভাল কন্টেন্ট বলব?

আমরা কিভাবে ভালো ও মন্দ কন্টেন্ট গুলো চিনতে পারব? আপনাদের ওয়েবসাইটে যে কন্টেন্ট গুলো থাকে, তার সবই যে ভালো এমনটা নয়। কিছু ভালো ও কিছু আংশিক ভালো থাকে।ভালো কন্টেন্ট তৈরি করতে হলে আদর্শ মানের আর্টিকেল লিখতে হবে। এটা আপনি নিজেও লিখতে পারেন, বা অন্যর দ্বারা লিখে নিতে পারেন। তবে, লেখার মান ভালো হতে হবে। যে বৈশিষ্ট্য গুলো থাকলে ভালো কন্টেন্ট বলা যাবে তা হল…

  • সাবজেক্ট এর রিলেশন থাকতে হবে ওয়েবসাইটের সাথে পেজ গুলোর সাথে।
  • ভিজিটরদের জন্য প্রয়োজনীয় ইনফরমেশন থাকবে যা আপনার টার্গেট।
  • বিভিন্ন সমস্যার সমাধান থাকবে টার্গেট ভিজিটরদের।
  • বিভিন্ন প্রশ্নের সমাধান থাকবে।
  • আপনার ওয়েবসাইটটি তথ্যবহুল হতে হবে।
  • যে কন্টেন্ট গুলো শুধুমাত্র Search engine কে টার্গেট করে লেখা হয়।

এসব কন্টেন্ট গুলোতে প্রচুর পরিমানে keyword থাকে। তবে, এগুলো শুধুমাত্র search engine এ ranking বৃদ্ধি করার জন্য তৈরি করা হয়। এসব content দিয়ে আপনার সাইটের কোন goal পূরণ হবে না। বর্তমানে, গুগল এই ধরণের content এর ব্যাপারে অনেক বেশি আলারট এবং আগের চেয়ে আরো ভালভাবে গুগল এসব find out করতে পারে। তাছাড়া, গুগলের অনেক human reviewer আছে।  যে সব মানুষেরা এসব করতেন, তারা ইতিমধ্যে তার জন্যে শাস্তি পেয়েছেন। সুতরাং, গুগলের কাছে হয়রানি থেকে দূরে থাকুন। আপনি Visitor এর জন্য মানসম্মত content তৈরি করুন। মানসম্মত content আপনার goal ও পূরন হবে আবার se তে ভাল র‌্যাঙ্কও পাবেন। আপনারা এমন তৈরি করবেন না, যে পেজ আপনার ওয়েবসাইটের অংশ না যা। আপনি ওয়েবসাইটের এর জন্য এমনধরনের কন্টেন্ট লিখুন, যা আপনার টার্গেট অডিয়্যন্স ও সার্চ ইঞ্জিন দুটাকেই প্রাধান্য দেবে। আপনার কাজ হবে,  se ও কন্টেন্ট এর মধ্যে একটি সামঞ্জস্য বিধান করা। আপনি  প্রথমে  user এর জন্য লিখুন, এবং পরবর্তীতে লেখাটাকে edit করুন। তারপরে,  relevant keyword গুলোকে সঠিক জায়গায় placement করুন। একটা পেজে বিভিন্ন ধরণের পেজও বিভিন্ন ধরনের content থাকে। আপনি কখনোই ওয়েবসাইটকে Brochures এর সাথে তুলনা করবেন না। মনে রাখতে হবে, ভিজিটররা অন্য অনেক সোর্স থেকেও আসতে পারে। মনে করুন, ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইট সর্ম্পকে কিছুই জানেনা। আপনাকে প্রতিটি তথ্য সঠিক জায়গায় রাখতে হবে। আর এ কারণেই আপনাদের কে পেজের বিভিন্নস্থানে keyword use করতে হবে।

 

  • Home page
  • Main category pages
  • Sub category pages
  • Product/service pages
  • Information/articles/news/posts
  • About us page
  • Help pages
  • Search engine home pages কে সবচেয়ে বেশি weight দেয়। তাই হোম পেজের জন্য এই কাজগুলো করতে পারেন।
  • Broad ও competitive keyword phrases
  • Use keyword rich tag line
  • মানুষদের অন্যান্য গুরুত্বপূণ ক্যাটাগরি পেজে directory করুন।

 

 

আপনারা এখানে, বিভিন্ন ক্যাটাগরি সর্ম্পকিত তথ্য অ্যাড করতে পারেন। se এটাকে ভাল গুরুত্ব দেয়। আপনি এখানে, products পেজেস সর্ম্পকে ভালো মানের লিখতে পারেন।মনে রাখা প্রয়োজন, বড় ওয়েবসাইটের জন্য subcategory দরকার হয়।

 

 

 Product/Service Pages:

এই পেজ গুলোতে  সাধারণত service সর্ম্পকে তথ্য থাকে এবং এখানে আপনারা related keyword গুলো ইউজ করতে পারেন। পেজগুলার সাধারনত একের অধিক কপি থাকতে পারে, তার কারণ  অনেক সময় বিভিন্ন service এর একই ধরনের ফিচার থাকতে পারে।

 

Information/News/Articles/Posts:

  • অন্যান্য পেজ থেকে সাধারণত কন্টেন্ট বেশি থাকে
  • তথ্যবহুল
  • এখানে আপনি আপনার expertise দেখাতে পারেন
  • এই আর্টিকেলগুলো সাধারণত বিক্রির উদ্দেশ্য প্রস্তুত করা হয় না।

 

 

এখানে normallyই অনেক কিওয়ার্ড চলে আসে, keyword research করতে হয় না। তবে, আপনারা ইচ্ছা করলে আপনি কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে পারেন। ভালো থাকবেন। পরবর্তী আর্টিকেল পড়ার জন্য আমন্ত্রণ রইল।