৫ ধরণের ইমেইল যা সাবস্ক্রাইবারকে ওয়েবসাইট ভিজিট করতে উৎসাহিত করে

৫ ধরণের ইমেইল যা সাবস্ক্রাইবারকে ওয়েবসাইট ভিজিট করতে উৎসাহিত করে

আমি আপনাদের নিকট কিভাবে সাবস্ক্রাইবারকে সহজে ওয়েবসাইটে  ভিজিট করতে উৎসাহিত করে তা সুবিস্তারিত ভাবে আলোচনা করছি। প্রথমেই, আপনাদের কে বলা দরকার ইমেইল মার্কেটিংকে বলা হয় ডিজিটাল মার্কেটিং । মার্কেটিং পদ্ধতি এর উপকারটা হল সবচেয়ে লাভজনক ।  কারণ, এটি এমন একটি মার্কেটিং পদ্ধতি যার মাধ্যমে কাস্টমারদের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করা যায়।  তাদের কাছে খুব সহজেই পণ্য পৌছানো যায়। কিন্ত, আপনি যদি যেকোন ইমেইল পাঠান তাহলে লাভ করতে পারবেন না বরং ক্ষতি হব। এখানে কিছু অভিযোগ থাকে যে তারা ইমেইল পাঠায় কিন্তু কোন লিড বা ভিজিটর পায় না। আপনাদের জানা দরকার, ইমেইল মার্কেটিং এ কিছু ট্রিক্স আছে যার মাধ্যমে আপনি আপনার সাবস্ক্রাইবারকে সহজে ওয়েবসাইটে বা ল্যান্ডিং পেইজে পাঠাতে পারবেন।  তাদের মাঝে আপনার প্রতি, আপনার অফার বা পণ্যের প্রতি আগ্রহ সৃষ্টি করতে পারবেন। তেমনি,  আপনাদের জন্য ৫ ধরনের ইমেইল নিয়ে নিচে আলোচনা করছি……

. বিশেষ অফার প্রদান করুনঃ

যখন কোন পরিচিত ফ্রেন্ড, আত্মীয় এমনকি অপরিচিত কেউও আমাদের বিশেষ কোন অফার দিয়ে থাকে তখন আমাদের সবসময়ই ভালো লাগে। আপনি যদি সাবস্ক্রাইবারকে মাঝে মাঝে বিশেষ কিছু প্রদান করেন তাহলে তারা আনন্দিত হবে। তারা আপনাকে নিয়ে কিছু সময় হলেও চিন্তা করবে এবং আপনাকে সহজে গ্রহন করবে। আপনি তাদের কাছে বেশি বিশ্বাসযোগ্য হবেন। আপনি যদি কোন সার্ভিস প্রদান করেন তাহলে সাবস্ক্রাইবারদের বিশেষ টিপস এর জন্য লাইভ ওয়েবিনারে অংশগ্রহন করার সুযোগ দিতে পারেন । আপনি তাদের আপনার টিপস এর কোন পিডিএফ বুক দিতে পারেন। আবার, আপনি যদি কোন পণ্য বিক্রয় করেন তাহলে সেই পণ্যে ডিস্কাউন্টের অফার বা ফ্রী সেম্পল এর অফার দিয়ে ইমেইল পাঠাতে পারেন। এই ধরণের অফার সাবস্ক্রাইবাররা আনন্দের সাথে গ্রহন করবে এবং আপনার সাথে সম্পর্ক তৈরি হবে। এতে আপনিও লাভবান হতে থাকবেন।

. মাঝে মাঝে  গিফট পাঠানঃ

আপনাকে মনে রাখতে হবে, সাবস্ক্রাইবাররা হল আপনার সম্পদসরূপ। সেই সম্পদকে সবসময় মূল্যায়ন করার চেষ্টা করুন। তাদের মূল্যায়ন করতে মাঝে মাঝে গিফট দিয়ে ইমেইল পাঠান। তাদের জন্য আপনি যেই কন্টেন্টই তৈরি করেন তা আপনার সাবস্ক্রাইবারদের কাছে পৌছে দিন। তাদের সুবিধার্থে বিভিন্ন ভাবে ইমেইল পাঠাতে পারেন। আপনি কোন একটি আর্টিকেল লিখেন তাহলে তার পিডিএফ, অডিও বা ভিডিও তৈরি করুন।  আপনি, একটি কন্টেন্টের একাধিক ভার্শন তৈরি করুন এবং সাবস্ক্রাইবারকে পাঠান। সাবস্ক্রাইবারের কাছে যেই ভার্শন ভালো লাগে তারা সেই ভার্শন গ্রহন করবে। এগুলো তাদের কাছে গিফট হিসেবে গ্রহনযোগ্য হবে।তারা খুশি হবেন এ বিষয়ে।

. ইন্টাররেস্টিং ইমেইল পাঠানঃ

একজন সাবস্ক্রাইবার প্রতিদিন অনেক ইমেইল পেয়ে থাকে। আপনার নিকট বিভিন্ন কোম্পানী, ফ্রেন্ড, রিলেটিভ ইত্যাদি ইমেইল পাঠায়। আপনি যখন কোন ইমেইল পাঠাবেন সেই ইমেইল যেন শর্ট এবং ইন্টারেস্টিং হয়। আপনার সাবস্ক্রাইবার যেন বিরক্ত না হয় । অন্যথায়, আপনি সাবস্ক্রাইবার হাঁড়াবেন আর যত ইন্টারেস্টিং ইমেল পাঠাতে পারবেন আপনার লিঙ্ক বা ওয়েবসাইট ভিজিট করতে ততটাই ইচ্ছা তৈরি হবে।

. সাবস্ক্রাইবারের সাথে বন্ধুত্বঃ

প্রত্যেকটি ইমেইল মার্কেটারের একটি লক্ষ্য থাকা উচিত তা হল তার সাবস্ক্রাইবারের সাথে বন্ধুত্ব সম্পর্ক তৈরি করা।  আপনার মনে হতে পারে, শুধুমাত্র ইমেইলের মাধ্যমেই সম্পর্ক এবং তারা মনে করে এই সম্পর্ক শুধু ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে । আপনি তাদের বিভিন্ন ভাবে সুবিধা দিলেও তাদের মাঝে এই ধরণের মনোভাব থেকেই যায়। তাই, আপনি আপনার সাবস্ক্রাইবারদের সাথে সম্পর্ক আরো মজবুত করতে তাদের কে বিভিন্ন কাজের অফার দিতে পারেন।  যদি আপনার ব্লগের রাইটারের প্রয়োজন হয় তাদের রাইটার নিয়োগের অফার দিন, আবার যদি কোন মার্কেটার প্রয়োজন হয় তাহলে তাদের ইমেইল করুন। তাদের ইন্টারভিউর জন্য আমন্ত্রন করুন।আপনি তাদের বুঝতে দিন যে আপনি তাদের কাছের মনে করছেন।  যদি কেউ সাড়া নাও দেয়, তারপরও তাদের সাথে আপনার সম্পর্ক আরো মজবুত হবে। এই পদ্ধতির মাধ্যমে সম্পর্ক মজবুতের সাথে  আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করতে তারা অনেক উৎসাহবোধ করবে।

. বড় ইভেন্টের আগে প্রিভিউ প্রকাশ করুনঃ

আপনারা একটা বিষয় লক্ষ্য করুন, তা হল টেলিভিশনের প্রায় সকল জনপ্রিয় প্রোগ্রাম গুলো তাদের পরবর্তীর জন্য প্রিভিউ প্রকাশ করে।এই প্রিভিউ মানুষের মাঝে আগ্রহ সৃষ্টি করে এবং পরবর্তী দেখার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়। বড় ইমেল মার্কেটাররা এই কাজটি করে। তাদের বড় ইভেন্টের জন্য একটি প্রিভিউ তৈরি করে এবং সেই প্রিভিউ সাবস্ক্রাইবারদের কাছে গ্রহণযোগ্য হয়। এই পদ্ধতিটি সাবস্ক্রাইবারদের ওয়েবসাইটে আকর্ষন বৃদ্ধি করে। আশা করি, আর্টিকেলটি পড়ে আপনারা লাভবান হবেন।